-->

Xiaomi Redmi 10A Price in Bangladesh

হ্যালো বন্ধুরা কি অবস্থা সবার? আশা করি সবাই ঠিকঠাক। আজ আমরা কথা বলব। বাংলাদেশে মার্কেটে সদ্য লঞ্চ হওয়া Xiaomi Redmi10A কে নিয়ে। ফোনটির দাম ও স্পেসিফিকেশন এবং ফোনটিতে কি কি থাকছে না থাকছে সব বিষয় নিয়ে আজকের ব্লগে কথা হবে।তো চলুন শুরু করা যাক।


ফাইনালি বাংলাদেশের মার্কেটে প্রথমবারের মতো Redmi 10A ফোনটাকে পানির দামে লঞ্চ করে দিয়েছে Xiaomi বাংলাদেশ। এবং এই ফোনটা তে 2gb Ram এর পাশাপাশি 4 জিবি Rom ভেরিয়েন্ট রয়েছে । এছাড়া এই ফোনটা তে 5000 ব্যাটারি সহ ফোনটিতে রয়েছে ফিংয়েরপৃন্ট স্ক্যানার। খুব কম বাজেটের মধ্যে এই ফোনটিতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার ইউজ করেছে শাওমি রেডমি বাংলাদেশ। 


Xiaomi Redmi 10A Price in Bangladesh

ফোনটির দুটি ভার্সন লঞ্চ হয়েছে বাংলাদেশ মার্কেটে। এর মধ্যে 2/32 জিবি ভ্যারিয়েন্টে ফোনটি  বর্তমান বাজার মূল্য 9999TK, এবং অন্যদিকে ফোনটি আরও একটি ভ্যারিয়ান্ট রয়েছে বাজারে । যেটি হচ্ছে 4/64GB Variant . তো এই 4/64 জিবির বর্তমান বাজার মূল্য 11999টাকা অর্থাৎ ১২হাজার টাকা । Redmi 10A ফোনটি বর্তমানে পাওয়া ১০ হাজার এবং ১২হাজারে মিলবে ফোনটির দুইটা ভায়রিয়েন্ট। 


Xiaomi Redmi 10a specs

এবার চলুন ফোনটির স্পেসিফিকেশন নিয়ে কিছু কথা বলা যাক। যদিও ফোনটির দাম অনুযায়ী বেশ ভাল কিছু ফিচারই অফার করছে জনসাধারণকে। তবু আপনার বাজেট যদি খুব টাইট না হয়ে থাকে তাহলে 2/1 হাজার বাড়িয়ে অন্য ফোন নেওয়ার সাজেশন রইলো। 


যেহেতু ফোনটি একটি বাজেট ক্যাটাগরির ফোন, তাই ফোনটিতে ডিসপ্লে হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে - এইচডি প্লাস রেজোলিউশনের 6.53 ইঞ্চির একটি আইপিএস এলসিডি প্যানেল। যদিও ফোনটির ডিসপ্লে টা খুব  স্ট্রং না তবুও, দামের বিবেচনায় এগিয়ে রাখা যায়। 


ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড 11 এবং UI হিসাবে রয়েছে MIUI 12.5 এর শাওমির চিরচেনা ইউআই। ও ভালো কথা ফোনটিতে আগামীতে Android 11 এর আপডেট ও পাওয়া যাবে বলে জানা গ্যাছে।


ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি 25 এর 9 ন্যানোমিটারের একটি চিপসেট। এই একই চিপসেট টি কিন্তু আমরা গত বছর লঞ্চ হওয়া রেডমি 9A ফোনটিতেও লক্ষ্য করেছি। এত আপডেট ভার্সনের ফোনে কেন? শাওমি সেম চিপসেটটি ব্যবহার করল।আমার বুঝে আসে না। চিপসেট টি একদম বেসিক লেভেল চিপসেট এবং সাধারণ কাজকর্ম করার জন্য ব্যবহার করা হয়। 


তাই গেমিংয়ের জন্য  প্রেফারেবল না ফোনটি। তো আপনি চাইলে ফোনটিতে মিডিয়াম এবং লো গ্রাফিক্স দিয়ে গেমগুলো খেলতে পারবেন। এই ফোনটি একটু ভাল এক্সপিরিয়েন্স পাওয়ার জন্য আমি সবাইকে 2GB Ram এর ফোন থেকে 4GB Ram এর ভ্যারিয়ান্ট টিকে বেশি প্রেফার করব। তবে আপনার বাজেট যদি একদম টাইট থাকে এবং আপনি যদি শুধুমাত্র স্বাভাবিক কাজকর্ম করে থাকেন তাহলে আপনি চাইলে 2GB Ram ফোনটিকে নিতে পারেন। 


ফোনটিতে রয়েছে 13 মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেট আপ। এবং ফোনটির ফন্ট সাইডে রয়েছে একটি 5 মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। আমার মনে হয় একদম বেসিক লেভেল এর ক্যামেরা সেটআপের করা হয়েছে ফোনটিতে। যদিও ফোনটির দামের কথা চিন্তা করলে মেনে নেওয়া যায়। যেটা কিন্তু টেকনো এবং ইনফিনিক্স এটার থেকেও মোটামুটি ভাল ধরনের ফোন Market এ লঞ্চ করেছে। 


ফোনটিতে ব্যাটার হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 5000 এর ব্যাটারি এবং চার্জ করা যাবে 10 ওয়াটের চার্জার দিয়ে। ফোনটির স্পেসিফিকেশন অনুযায়ী এবং ব্যাটারি অনুযায়ী বেশ ভালোই ব্যাকআপ পাওয়া যাবে বলে মনে হয়। তবে চার্জ হতে প্রায় 2,3 ঘন্টা সময় লেগে যেতে পারে। তাই আপনি যদি একটু মোটামুটি ভালোভাবে ফোনটি ইউজ করতে চান তাহলে আমি বলব যে চার জিবি ভ্যারিয়েন্টে ফোনটি নেওয়ার জন্য। 


12000 টাকা দিয়ে রেডমি টেন স্মার্টফোন থাকে না কিনে রেডমির নিজস্ব রেডমি 10C স্মার্টফোনটা আপনারা নিতে পারেন যেখানে স্নাপড্রাগনের প্রসেসর ব্যাবহার করেছে শাওমি। এছাড়া রিয়েল মির - রিয়েল মি C25 . C25Y সহ বেশ অনেক গুলা স্মার্টফোনে পাওয়া যায় এই 10 থেকে 15 হাজার টাকার বাজেটে। যেগুলো কিনা এই ফোনটা থেকে অনেক বেটা। 

শেষ কথা

10 থেকে 15 হাজার টাকার উপরে কোন ফোন কিনতে চাইলে রেডমি টেন স্মার্টফোন থেকে আরো বেটার বেটার অপশন রয়েছে বর্তমানে মার্কেটে তাই বাজেট যদি খুব বেশি টাইট না হয়ে থাকে তাহলে অন্য ফোনগুলো দেখতে পারেন। তো এই ছিল Xiaomi Redmi 10 A নিয়ে আমাদের আজকের ছোট্ট লেখা। আশা করি ফোনটা নিয়ে কিছুটা হলেও তথ্য দিতে পেরেছি। 


Post a Comment (0)
Previous Post Next Post